Saturday , February 25 2017
Home / জাতীয় / হোয়াটসঅ্যাপ-ভাইবারের অবৈধ কল ঠেকাতে হচ্ছে নীতিমালা !

হোয়াটসঅ্যাপ-ভাইবারের অবৈধ কল ঠেকাতে হচ্ছে নীতিমালা !

হোয়াটসঅ্যাপ-ভাইবারের অবৈধ কল ঠেকাতে হচ্ছে নীতিমালা
হোয়াটসঅ্যাপ, ভাইবারসহ বিভিন্ন মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অবৈধ কল ঠেকাতে নীতিমালা করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। শুক্রবার বিটিআরসির কনফারেন্স সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে সংস্থাটির চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, ‘এ বিষয়ে চিন্তা-ভাবনা করছি। আগামী ২/১ মাসের মধ্যেই আমরা এই বিষয়ে একটি নীতিমালা তৈরি করব’।

শাহজাহান মাহমুদ বলেন, হোয়াটসঅ্যাপ, ভাইবার, ইমোর মাধ্যমে অবৈধ ভয়েস কলের সরাসরি প্রভাব পড়েছে বৈধ কলের ওপর। কিন্তু আমরা এখনও এই বিষয়ে কোনো নীতিমালা করতে পারিনি। কারণ আমরা এখনও উন্নত বিশ্বের উদাহরণগুলো দেখছি।

তিনি আরও বলেন, আমরা দেখেছি অন্যান্য যেসব দেশে উল্লেখিত সেবাগুলো চালু আছে সেগুলোর মাধ্যমে শুধু ফাইল বা ডাটা ট্রান্সফার করা যায়, কল করা যায় না। আগামী ২/১ মাসের মধ্যেই আমরা এই বিষয়ে একটি নীতিমালা তৈরি করব এবং তখন আমরা ওটিটি প্রযুক্তির মাধ্যমে এই কলগুলো নিয়ন্ত্রণ করতে পারব।

আন্তর্জাতিক অবৈধ কল ঠেকাতে চলমান প্রক্রিয়া নিয়ে চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের কলগুলো মনিটরিং করে আন্তর্জাতিক দুইটি প্রতিষ্ঠান সিডাস ও থ্রিবিআই। এ ক্ষেত্রে অবৈধ কোনো ভিওআইপি কল হলেই তারা ওই সিম বা রিমের নম্বরটা আমাদের কাছে পাঠায় এবং আমরা সেটা বন্ধের জন্য সাথে সাথে টেলিকম অপারেটরদের কাছে পাঠাই। আগে নিয়ম ছিল ৪ ঘণ্টার মধ্যে ওই সিম বা রিম বন্ধের নির্দেশ থাকলেও এখন তা কমিয়ে ২ ঘণ্টা করা হয়েছে। এ ছাড়াও সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ক্ষেত্রে আমরা আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় অভিযান চালিয়ে থাকি।

সংবাদ সম্মেলনে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব ফয়জুর রহমান চৌধুরী বলেন, মোবাইল ফোনে সিম ব্যবহার করে আন্তর্জাতিক অবৈধ কল বন্ধ ও নিয়ন্ত্রণে আনতেই আমরা বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছিলাম। এত কিছু করেও অবৈধ ভিওআইপি কল পুরোপুরি বন্ধ করা যায়নি। এজন্য সরকারের উদ্যোগ অবৈধ ভিওআইপি বন্ধে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

টেলিটকের সাথে ভিওআইপি’র জড়িত থাকার বিষয়ে ফয়জুর রহমান বলেন, সিম দিয়ে যারা ভিওআইপি করে তা যে কোনো অপারেটরের সিম হতে পারে। কিন্তু অবৈধ ভিওআইপি’র ব্যাপারে কোনো ছাড় দেওয়া হয়নি। আর এর সাথে যদি সরকারি টেলিকম অপারেটর টেলিটক বা অন্যকোনো অপারেটরের সংশ্লিষ্ট কেউ জড়িত থাকে তাদের কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না। সরকার এ বিষয়ে জিরো টলারেন্ট নীতি মেনে চলবে।

তিনি আরও বলেন, আপনারা জানেন অবৈধ ভিওআইপি বন্ধে টেলিটককেও জরিমানা করা হয়েছে। এই জরিমানার টাকা আদায়েরও জোর প্রচেষ্টা চলছে।

About Monira Islam

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *