Monday , February 20 2017
Home / আন্তর্জাতিক / কয়েক লাখ শ্রমিক নিবে কাতার ও আরব আমিরাত

কয়েক লাখ শ্রমিক নিবে কাতার ও আরব আমিরাত

বাংলাদেশ থেকে প্রায় দুই লাখ শ্রমিক নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে কাতার ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। গত শনিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে গ্লোবাল ফোরাম অন মাইগ্রেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (জিএফএমডি)-এর নবম শীর্ষ সম্মেলনে দেশ দুটি এমন আগ্রহের কথা জানায়।

সম্মেলনে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি’র সঙ্গে পৃথকভাবে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন কাতারের প্রশাসনিক উন্নয়ন ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক মন্ত্রী ড. ঈসা বিন সাদ আল জাফালি আল নাঈমী এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের মানবসম্পদ ও এমিরেটাইজেশন বিষয়ক মন্ত্রী গোবাস সাকর গোবাস। এ সময় তারা এ বিষয়ে নিজ নিজ দেশের ইতিবাচক অবস্থানের কথা জানান। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ খবর জানানো হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে কাতারের প্রশাসনিক উন্নয়ন ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক মন্ত্রী ড. ঈসা বিন সাদ আল জাফালি আল নাঈমীর সঙ্গে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম-এর দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে কাতারে বাংলাদেশি কর্মীদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। কাতারের মন্ত্রী বাংলাদেশ থেকে আরও দক্ষ নারী ও পুরুষ কর্মী নেওয়ার কথা বলেন।

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে যেসব বাংলাদেশি কর্মীর কাতারে কর্মসংস্থান হয়েছে তারা ভালো আছেন এবং তাদের কাজের প্রশংসনীয়।

বাংলাদেশের প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন কর্মীদের আন্তর্জাতিক মানের প্রশিক্ষণ প্রদান করে থাকে। কাতারের সব ধরনের দক্ষ কর্মী পাঠাতে বাংলাদেশ এখন প্রস্তুত।

পরে সংযুক্ত আরব আমিরাতের মানবসম্পদ ও এমিরেটাইজেশন বিষয়ক মন্ত্রী গোবাস সাকর গোবাস-এর সঙ্গে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি’র পৃথক আরেকটি দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে কর্মী পাঠানো সম্পর্কিত বিষয়দি, বিশেষ করে পুরুষ কর্মী পাঠানোর বিষয়ে আলোচনা হয়।

অনুষ্টানে আইওএম- এর মহাপরিচালক বলেন, আগামীতে বাংলাদেশ থেকে অধিক হারে কর্মী পাঠানো হবে। প্রত্যেক কর্মীর নিরাপদ অভিবাসনের ব্যাপারে তার সংস্থা সব ধরনের সহযোগিতা করবে। এ ধরনের আন্তর্জাতিক সম্মেলন (জিএফএমডি সম্মেলন) বাংলাদেশের অভিবাসন ক্ষেত্রে অনেক সহযোগিতা করবে। নিরাপদ অভিবাসন তৈরিতে কাজ করবে।

এ সময় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব বেগম শামছুন নাহার, অতিরিক্ত সচিব জাবেদ আহমেদ, অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ আজহারুল হক, জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক মো. সেলিম রেজা, ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক গাজী মোহাম্মদ জুলহাস-এনডিসি, মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মো. বদরুল আরেফিন, মন্ত্রীর একান্ত সচিব মোহসিন চৌধুরী এবং উপ সচিব মোহাম্মদ শাহীন উপস্থিত ছিলেন।

About Monira Islam

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *